ভোলায় চাচার আদর্শকে ধরে রাখতে অসহায় মানুষের পাশে থেকে নিঃস্বার্থভাবে সহযোগিতা করেন মিলন

0
369

স্টাফ রিপোর্টারঃ আজকের দেশবানী।

ভোলার গণমানুষের নেতা ও নয়নের মনি, ভোলার গর্ব ভোলার অহংকার সাবেক শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী সংসদ সদস্য জনাব আলহাজ্ব তোফায়েল আহমদের ভাতিজা মোহাম্মদ মিলন।

মিলন তার চাচা তোফায়েল আহমদের আদর্শকে বুকে লালন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে দিন-রাত নিস্বার্থভাবে এলাকার গরিব অসহায় মানুষের পাশে থেকে বিভিন্নভাবে তাদেরকে সহযোগিতা করে আসছেন।

এলাকার গরীব ছেলে মেয়েদের চাকরি পাওয়ার জন্য সহযোগিতা করেছেন তিনি।
টাকার অভাবে যেসব মেয়েদের বিয়ে হয় না তাদেরকে অর্থ দিয়ে বিয়ে সম্পন্ন করে দিয়েছেন মিলন।

মিলন জানান, আমি এলাকার চেয়ারম্যান ও বড় ধরনের কোনো দায়িত্বে নেই তবুও আমি যতদিন বেঁচে আছি আমি আমার সাধ্যনুযায়ী গরীব অসহায়দেরকে সাহায্য সহযোগিতা করেই যাবো।

তিনি আরো বলেন আমার এই উদারতা ও গরিবদের প্রতি ভালোবাসা দেখে এলাকার কিছু সার্থবাজ ও কুচক্রী মহল সমাজে আমার সম্মান ও রাজনৈতিক ক্যারিয়ার নষ্ট করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে।

ঠিক তখনই সোশ্যাল মিডিয়া অর্থাৎ ফেসবুকে আমার বিরুদ্ধে কিছু অযুক্তিক লেখা পোস্ট করেছে যা আদৌ সত্য নয়।

আমি উক্ত পোষ্টির প্রতি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

তবে আমি কু’চক্রীদের বলতে চাই যতদিন বেঁচে থাকব ততদিন আমার চাচা তোফায়েল আহমদ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে দেশ ও দেশের সাধারন জনগনের জন্য কাজ করে যাবো।

এলাকাবাসী জানান, মিলন নেতা কোমল মনের মানুষ, নেই তার কোন অহংকার গরীব ধনী সবাই তার কাছে সমান।
সকলের সাথে হাসি মুখে কথা বলেন তিনি। কোন অসহায় লোক বিপদে পরলে খবর পাওয়া মাত্রই এগিয়ে যান।
সবাইকে তিনি ভালবাসা দিয়ে শান্তনা দেন।
আমরা তার জন্য দোয়া করি যেন আল্লাহ তাকে নেক হায়াত দান করেন।
গরীবদেরকে যেন আরো সহযোগিতা করতে পারে সেই তৌফিক যেন আল্লাহ তাকে দেন।

Print Friendly, PDF & Email